,

AD
নববার্তা.কম এর সংবাদ পড়তে লাইক দিন নববার্তা এর ফেসবুক ফান পেজে

আগৈলঝাড়ায় স্লুইজ গেট বন্ধ করে মাছ চাষ করায় পাঁচ’শ বিঘা জমি অনাবাদী থাকার আশঙ্কা

লাইক এবং শেয়ার করুন

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) # বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট খালের সরবাড়ি গ্রামের হরিমন্দির সংলগ্ন স্লুইজ গেট বন্ধ করে মাছ চাষ শুরু করেছে স্থানীয় প্রভাবশালী যুবলীগ নেতা সুধীন হালদার। ফলে ওই এলাকার ছবিখাঁরপাড়, বড়মগড়া, সরবাড়ি এলাকার প্রায় পাঁচশ’ বিঘা জমিতে বোরো চাষাবাদ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

স্থানীয় চাষী অঘোর হালদার, প্রমোদ বাড়ৈ, সাধন হালদার, গোপাল চন্দ্র, পুলিন হালদার, সুধির চন্দ্রসহ একাধিক চাষীরা জানান, বাকাল ইউনিয়নের ছবিখাঁরপাড় ও বড়মগড়া এলাকার কয়েকশ’ বিঘা আবাদী জমিতে খালের জোয়ারের পানি ওঠানামা করার জন্য আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট খালের সরবাড়ি গ্রামের হরিমন্দির সংলগ্ন এলাকায় দীর্ঘদিন পূর্বে সরকারীভাবে একটি স্লুইজ গেট নির্মাণ করা হয়। চাষীরা অভিযোগ করেন, সম্প্রতি সময়ে স্লুইজ গেটের মুখ মাটি দিয়ে সম্পূর্ণ বন্ধ করে জমিসংলগ্ন বিশাল ঘেরে মাছ চাষ শুরু করেছেন স্থানীয় মৃত সুনীল হালদারের ছেলে ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা সুধীন হাওলাদার।

 

ফলে ওই স্লুইজ গেট দিয়ে পানি ওঠানামা সম্পূর্ণ বন্ধ হওয়ায় আসন্ন সেচ মৌসুমে প্রায় পাঁচশ’ বিঘা জমিতে বোরো চাষাবাদ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে। চাষীরা আরও অভিযোগ করেন, এঘটনায় তারা প্রতিবাদ করায় যুবলীগ নেতা সুধীন হালদার তাদের বিভিন্ন ধরণের হুমকিধামকি দিচ্ছে। স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ সভাপতি সুধীর হালদার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, যুবলীগ নেতা সুধীন হালদারকে একাধিকবার স্লুুইজ গেটের বন্ধ করা মুখ খুলে দিতে বলা হলেও সে দম্ভ দেখিয়ে উল্টো চাষীদের হুমকি অব্যাহত রেখেছে। হুমকির অভিযোগ অস্বীকার করে যুবলীগ নেতা সুধীন হালদার বলেন, এ স্লুইজ গেটে চাষীদের তেমন কোন উপকারে আসেনা, তাই তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। চাষীদের জন্য প্রয়োজনে আমি নিজে বাঁধ অপসারণ করে চাষাবাদের ব্যবস্থা করব।  এব্যাপারে বাকাল ইউপি চেয়ারম্যান বিপুল দাস ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, চাষীদের বাঁধার মুখেও সুধীন স্লইজ গেটে বাঁধ দিয়েছে। তাকে অনেকবার বাঁধ অপসারণ করতে বলা হলেও সে তা করেনি।


লাইক এবং শেয়ার করুন
শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আরও অন্যান্য সংবাদ