পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার কৃষক জয়নাল বেগুন চাষে লাভবান

১০৩ বার পঠিত

সৈয়দ বশির আহম্মেদ, পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী গ্রামের ষাটোর্ধ বয়সী কৃষক মো. জয়নাল আবেদীন জমাদ্দার এক একর উন্নত দেশী জাতের বেগুন চাষ করে এমন সফলতা অর্জন করেছেন।  তিনি একর পতিত জমিতে শুধু মাত্র থোক বিলাসী বেগুন চাষ করে দারিদ্র মোচন করেছেন।

কৃষক জয়নাল আবেদীন জানান, স্থানীয় কৃষি অফিসের পরামর্শে এক একর জমিতে ২৫ হাজার টাকা ব্যয়ে দেশী উন্নত জাতের বেগুন থোক বিলাসী আবাদ করেন। সারা বছর জুড়ে এ বেগুনের ফলন ফলে থোকায় থোকায়। বাজারে চাহিদাও প্রচুর। তিনি বছরে থোক বিলাসী বেগুন আবাদ করে তিন থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা আয় করছেন। আর বেগুনে ক্ষেতের ভেতর মৌসুমে ক্ষিরই আবাদ করে আয় করেন আরও ৫০ হাজার টাকা। সপ্তাহে দুইবার ২০/২২মন ফলন এই বেগুন ক্ষেত সংগ্রহ হয়। এবার মৌসুমের শুরুতে ৮০০ টাকা করে মন পাইকারী বিক্রি করেছি। বর্তমানে সাড়ে ৫০০টাকা থেকে ৬০০ টাকা মন বিক্রি করছি। পাইকাররা বাড়িতে এসেই আমার বেগুন কিনে নেন।

তিনি বলেন, থোক বিলাসী সারাবছর ফলে তাই এর চাষ করে আর্থিকভাবে লাভবান হয়োিছ। তিনি আরও বলেন, আমার বেগুন আবাদের সফলতা দেখে এলাকার আরও কয়েকজন কৃষক আমার কাছ থেকে চারা সংগ্রহ করেছেন। স্থানীয়  গুলিসাখালী গ্রামের শামীম তালুকদার। এ বিষয়ে মঠবাড়িয়ার সোনাখালী কৃষি ব্লকের উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. হেমায়েত উদ্দিন  বলেন, পতিত জমিতে যে কেউ থোক বিলাসী জাতের বেগুনের আবাদ করে জয়নালের মত লাভবান হতে পারেন। বেগুনের আবাদ দিয়ে এ কৃষক স্বাবলম্বী হয়েছেন।

এ বিষয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, মঠবাড়িয়র  মাটি ও আবহাওয়া থোক বিলাসী বেগুন চাষে অনুকুল। পতিত জমিতে এর আবাদ সম্প্রসারণে কৃষি বিভাগের পিরোজপুর-গোপালগঞ্জ-বাগেরহাট(পিজিবি) প্রকল্পের মাধ্যমে থোক বিলাসী বেগুনের  প্রদর্শনী প্লট করে স্থানীয় চাষীদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com