পিরোজপুরের নেছারাবাদে ৫ম শ্রেনীর ছাত্রীকে ধর্ষণের ৬ দিন পর থানায় মামলা (ভিডিও)

পিরোজপুর প্রতিনিধি # পিরোজপুরের নেছারাবাদের খায়েরকাঠি গ্রামের ৫ম শ্রেনীর (১২) এক ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই গ্রামের সুলতান মিয়ার পুত্র শাহ আলম (৪০)  নামের এক ব্যাক্তি ওই ছাত্রীকে ধর্ষন করেছে। এ ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা দিনমজুর আলী আহমেদ ঘটনার ৬ দিন পর বৃহস্পতিবার দুপুরে অভিযুক্ত ধর্ষক শাহআলমকে আসামী করে থানায় একটি মামলা করেছেন।  শনিবার রাতে ওই ছাত্রী তার এক আত্মীয় বাড়ী থেকে ঘরে ফেরার পথে রাস্তার উপর থেকে ধর্ষক শাহ আলম মেয়েটির মুখ চেপে ধরে পাশ্বের বাগানে নিয়ে জোড় পূর্বক ধর্ষন করে। পরে ছাত্রীটি এ ঘটনা তার পিতা মাতাকে জানালে তারা স্থানীয় ইউপি সদস্য গন্যমান্য ব্যাক্তিদের কাছে অভিযোগ করেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য স্নেহাংশুসহ বেশ কয়েকজন লোকেরা বলেন, ঘটনায় মাহমুদকাঠির স্থানীয় কিছু গ্রাম্য মাতুব্বররা বিষয়টির মিমাংশা করার কথা বলে অভিযুক্ত ধর্ষকের কাছ থেকে টাকা পয়সা এনে বিচারের নামে কালক্ষেপন করতে থাকে। একারনে মেয়ের পিতা বিচার না পেয়ে বৃহস্পতিবার (১৮ই মে) ধর্ষিতাকে নিয়ে নেছারাবাদ থানায় মামলা করেন।

ইউপি চেয়ারম্যান  শেখর কুমার সিকাদার বলেন, অভিযোগকারী ওই  মেয়ের পিতা আমাকে ঘটনা জানিয়েছে। আমি তাদের থানায় যাওয়াার পরামর্শ দিয়েছি। শুনেছি বর্তমানে মামলা তুলে নিতে স্থানীয় কিছু ব্যাক্তিরা মেয়ের বাবাকে টাকাপয়সা দিয়ে মামলা তুলে নিতে চেষ্টা চালাচ্ছে। মামলার  তদন্ত কর্মকর্তা এস আই সঞ্জীব কুমার পাহললান বলেন, এঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় ধর্ষক শাহআলমের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আসামী ধরার সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে।

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •