দেবীদ্বারে জালাল

দেবীদ্বারে জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ’র উদ্বোধনে যা বললেন কুমিল্লা জেলা প্রশাসক

১২৫ বার পঠিত
মোঃ কামরুজ্জামান বাবু,জেলা(কুমিল্লা)প্রতিনিধিঃ
 
শিক্ষা প্রত্যেক রাষ্ট্রের সাংবিধানিক নাগরিকের মৌলিক অধিকার: মানব সভ্যতার বিকাশ লাভের মূল হচ্ছে শিক্ষা। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার ইতিহাস যদিও অজানা তবু প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাকে প্রধান্য দিয়ে যে দেশের সরকার শিক্ষাকে জনগণের দোর গোড়ায় পৌঁছাতে পেরেছে সেই জাতি দ্রুত উন্নতি লাভ করেছে। শিক্ষার ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায় প্রাগৈতিহাসিক যুগে শিক্ষা কখনও বাণিজ্য ছিলনা যদিও তখনকার যুগে মানুষ অশিক্ষিত ছিল, বর্বর ছিল, অসভ্য ছিল, অমানবিক ছিল, আর্থিক দৈন্য ছিল তাদের নিত্য সঙ্গী।

মানব সভ্যতা ছিল কুসংস্কার ও মানবিয় গোত্র শ্রেণি মতবাদ মতভেদ ইত্যাদি বিশৃঙ্খলায় নিমজ্জিত অন্ধকার সমাজ। ক্রমে মানুষ শিক্ষার মাধ্যমে সভ্যতা অর্জন করলে শিক্ষা হয়ে উঠে মানুষের জন্য একটি অপরিহার্য বিষয়। স্বাধীনতার পর রাজনৈতিক অস্থিতিশীল ও সুস্থ রাজনীতির অভাবে ক্ষমতাসীন সরকারগুলো জাতির শিক্ষা, স্বাস্থ্য অর্থনৈতিক উন্নয়নে চরম ব্যর্থতায় শিক্ষার মান নিশুমুখী পর্যায়ে চলে এসেছিল এ কথা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। দেশের শিক্ষার এমন দুর্বলতার সুযোগে একটি মহল ৮০ দশক থেকে শিক্ষাকে পুঁজি করে বাণিজ্যে নেমে পড়ে। যা বর্তমানে একটি সফল ব্যবসায় পরিণত হয়েছে। দেশের নগর বন্দর থেকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রাইভেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছড়াছড়ি এ কথার স্বার্থকতাই প্রমাণ করে।

সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করে এভার শিক্ষার বাণিজ্য জাতির জন্য কখনও শুভ নয়। যদিও কেউ মনে করতে পারে এর দ্বারা শিক্ষা ক্ষেত্রে পরিবর্তন হয়েছে। এ রকম যুক্তি ব্যবসায়িক ছাড়া আর কিছু নয়। সামাজিক দায়বদ্ধতা মানুষকে মানবিক ও মহৎ করে। বর্তমানে দেশের প্রতিষ্ঠিত সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যুগে যুগে সমাজে শিক্ষার আলো বিতরণে মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন সজ্জন বিদ্ধান ত্যাগী গুণীজন সৃষ্টি করেছে। সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠায় অনেকে নিজের সহায় সম্বল অকাতরে দান করার দৃষ্টান্ত সমাজে এখনও স্বাক্ষী হয়ে আছে। প্রত্যেক সরকার জাতির উন্নয়নের অঙ্গীকারে ক্ষমতায় আসে। দেশ ও জাতির উন্নয়নের প্রধান শর্ত হচ্ছে শিক্ষা। অথচ কোন সরকারই শিক্ষার আমূল পরিবর্তনে কোন কর্মপরিকল্পনা করে নাই। মূলা ঝুলানো ছাড়া শিক্ষার কিছু করে নাই। মোগল ব্রিটিশ পাক আমলে প্রতিষ্ঠিত সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই এ শতাব্দীর শিক্ষার চাহিদা পূরণ করে চলছে নানা প্রতিকূল পরিবেশে। শিক্ষা বাণিজ্যকরণে একটি মহল সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ধংস করার নানা কূট কৌশলে শিক্ষা সম্প্রসারণকে বাধাগ্রস্থ করছে। প্রতিটি সামাজিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা ব্যবস্থাপনা ও সরকারের উদাসিনতা লক্ষ্য করলে শিক্ষা বাণিজ্যিকীকরণের কারণ সহজেই উপলব্ধি করা যায়।

‘ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক এ-তিনে মিলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে ব্যসায়িক প্রতিষ্ঠানে পরিণত করলে প্রকৃত ও মানসম্পন্ন শিক্ষার লক্ষ্য বাস্তবায়ন হবেনা, এ জাতীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবন পাকা হলেও শিক্ষারমান কাঁচাই থেকে যায়।’
 শনিবার দুপুরে দেবীদ্বার পৌর এলাকার বানিয়াপাড়ায় অবস্থিত সমাজ কল্যান মন্ত্রনালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ,কে,এম, খায়রুল আলম’র পিতা মরহুম ‘জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ’র উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাংগীর আলম ওই বক্তব্য তুলে ধরেন।
    
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুষ্টি বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান ও কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য্য অধ্যাপক ড. গোলাম মাওলার সভাপতিত্বে এবং মুরাদনগর উপজলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মোঃ কবির আহাম্মেদ’র সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি (চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার’র অসুস্থ্যতার কারনে অনুপস্থিত থাকায় তার প্রতিনিধি) কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মোঃ জাহাংগীর আলম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক মোঃ জামাল নাসের, ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের অধ্যাপক আলেয়া মাওলা, উপ-পরিচালক অধ্যাপক মোহাম্মদ হোসেন, কুমিল্লা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ-আল-মামুন, দেবীদ্বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইফুল ইসলাম, মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রাসেদুল কাদের, সিনিয়র এ,এস,পি সার্কেল দেবীদ্বার’র শেখ মোঃ সেলিম, দেবীদ্বার থানা অফিসার ইনচার্জ(সার্বিক) মোঃ মিজানুর রহমান।
    
অন্যান্যের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কাজী আঃ সামাদ, সাবেক উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এ,কে,এম, সফিকুল ইসলাম কামাল (ভিপি কামাল), ‘জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ’র পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি মোঃ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ, সাবেক হিসাব রক্ষক মোঃ জয়নুল আবেদীন, আবুল খায়ের গ্রুপের এ,জি,এম মোঃ মাহবুবুর রহমান ভূঞা প্রমূখ এবং স্বাগতিক বক্তব্য রাখেন ‘জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ’র অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র দাস।    
 
বক্তারা বলেন, সরকার মানসম্পন্ন শিক্ষা বিস্তারের ক্ষেত্রে নানাভাবে কাজ করে যাচ্ছে। প্রথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষাকে অবৈতনিক করেছে, চলতি বছরে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের মাঝে (১জানুয়ারীর মধ্যে) ৩৬ কোটি ২১ লক্ষ বই বিতরণ করেছে। শিক্ষার্থীদের জিপিএ-৫ কিংবা ভালো ফলাফলের চেয়ে মানসম্পন্ন ও প্রকৃত গুণগত শিক্ষার উপর গুরুত্ব দিতে হবে। তার ব্যতয় ঘটলে টুয়েন্টি টুয়েন্টি ওয়ান ভিশন সফল হবেনা। আলোকিত মানুষ, আলোকিত সমাজ গড়ে উঠবেনা। মাদক, সন্ত্রাস, ইভটিজিং, যৌতুক, বাল্য বিয়েসহ অপসংস্কৃতির প্রভাবে দেশ এগুবার পথ হারিয়ে পেছনের দিকে হাটবে।     
    
প্রধান অতিথি ‘জালাল উদ্দিন ফাউন্ডেশন স্কুল এন্ড কলেজ’র উদ্ভোধনী ফলক উন্মোচন করেন এবং সকল অতিথিদের উপস্থিতিতে ক্যাম্পাসে বৃক্ষরোপন করেন। পরে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চট্রগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার’র অসুস্থ্যতার কারনে অনুপস্থিত থাকায় তার আরোগ্য লাভে দোয়া প্রার্থনা করা হয়। দোয়া পাঠ করেন মাওলানা মোঃ নাছির উদ্দিন।
ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ কামরুজ্জামান বাবু, কুমিল্লা #

A responsible and committed journalist who displays an ability to write balanced, informative and interesting stories that give all involved parties an opportunity to have their say. A quick learner who can absorb new ideas and can communicate clearly and effectively. Possessing excellent bonding skills and an enquiring mind that helps to win over the confidence of people. Multi skilled with a ability to build strong working relationships with fellow investigators, photographers, columnists and news editors. Currently looking for a suitable role in journalism with a reputable and exciting publisher.

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com