জেনে নিন যে ৫ মশলা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ রাখে

৩১ বার পঠিত

বর্তমান প্রেক্ষাপটে রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন না এমন মানুষ কমই খুঁজে পাওয়া যাবে। এ সমস্যার মধ্যে উচ্চরক্তচাপ সমস্যায় আক্রান্তদের নিয়মিত ডাক্তার দেখানো ও ওষুধ খাওয়া জীবনের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না, আমাদের দৈনন্দিন খাদ্য তালিকায় এমন কিছু খাবার রয়েছে যা খেলে উচ্চ রক্তচাপ নিয়্ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।

দারুচিনি

দারুচিনি উচ্চ রক্তচাপ কমাতে অত্যন্ত কার্যকর। বিশেষ করে ডায়বেটিসের রোগীদের ক্ষেত্রে দারুচিনি আরও বেশি সফল। দারুচিনি গুঁড়ো করে রেখে দিন। তরকারি বা স্যুপ খাওয়ার আগে তার উপর ছড়িয়ে নিন। এতে খাবারের স্বাদও বাড়বে। এমনকি গরম কফির উপর ছড়িয়ে নিয়ে খেলেও চমৎকার লাগবে। দিনে ১০ গ্রাম দারুচিনি খাওয়াই যথেষ্ট।

ছোট এলাচ

মসলা হিসেবে ছোট এলাচ প্রায় সমস্ত বাঙালি বাড়িতেই ব্যবহার করা হয়। রক্তচাপ কমানোর ক্ষেত্রে ছোট এলাচ ভীষণভাবে কার্যকর তা একাধিক সমীক্ষার মাধ্যমে প্রমাণিত। মুখশুদ্ধি হিসেবে যেমন খেতে পারেন এলাচ, তেমনই রান্না করা খাবারেও গুঁড়ো এলাচ ব্যবহার করা যেতে পারে স্বাদ বৃদ্ধির জন্য। দিনে পাঁচ-ছ’টা এলাচ খেলে শরীরে তার প্রভাব উপলব্ধি করতে পারবেন।

রসুন

রসু‌ন কোয়া কাঁচা চিবিয়ে খেলে উচ্চ রক্তচাপের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি সুফল পাওয়া যায়। রসুনের প্রভাবে রক্তবাহী ধমনীগুলি স্ফীত হয়, ফলে রক্তচাপ হ্রাস পায়। যদি কাঁচা রসুনের গন্ধটা খুব উগ্র বলে মনে হয়, তাহলে রসুনের কোয়াগুলি হাল্কা সেঁকে নিয়েও খেতে পারেন। সকালবেলা খালি পেটে দু’কোয়া করে রসুন খেলে দারুণ উপকার পাবেন।

আদা

আদা মাংসপেশিকে শিথিল রাখে এবং শিরায় রক্তপ্রবাহ ঠিকঠাক রাখে। দিনে একটা করে আদা খেলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকবে। আদা কুচো করে নিয়ে যে কোনো নিরামিষ বা আমিষ খাবারের উপর ছড়িয়ে দিলে খাবারের স্বাদ বাড়বে।

পুদিনা পাতা

টাটকা পুদিনা পাতা যে উচ্চ রক্তচাপ কমাতে বেশ কার্যকর তা প্রমাণিত। আর পুদিনা পাতার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, এটি কাঁচা অবস্থাতেও খাওয়া যায়। স্যুপ বা সালাদে অল্প পরিমাণ পুদিনা পাতা ছড়িয়ে নিলে তার স্বাদ বাড়বে। পুদিনা পাতা বেটে চমৎকার চাটনিও তৈরি করে নিতে পারেন। দিনে মোটামুটি ৫০ গ্রাম পুদিনা পাতা খেলেই উপকার পাবেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com