কুষ্টিয়ায় সাধক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের স্মরণোৎসব’১৭ শুরু

১৮৩ বার পঠিত

মোঃ রাজন আমান,কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি # কুষ্টিয়ায় সাধক বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহ-এর আঁখড়াবাড়ীতে আজ শনিবার (১১মার্চ’১৭- ১৩ মার্চ’১৭) থেকে ৩ দিনব্যাপী সাধুরহাট শুরু হচ্ছে।

বাউল সম্রাট লালন শাহের জীবদ্দশায় চৈত্র মাসের ১ম সপ্তাহে পূর্ণিমার রাতে দোল পূর্ণিমার উৎসব পালন করা হতো। সেই থেকে লালন ভক্তরা প্রতি বছর এ উৎসব পালন করে আসছে।

ফকির লালন স্মরণোৎসব উৎসবকে ঘিরে কুষ্টিয়ার লালন আঁখড়াবাড়ীতে চলবে লালন মেলা। স্মরণোৎসবও মেলাকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। দোল পূর্ণিমার চাঁদ ওঠার সাথে সাথে ভক্তদের স্মরণোৎসবের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। লালন ভক্তদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠতে শুরু করেছে লালন আঁখড়াবাড়ি।

গতকাল শুক্রবার (১০ মার্চ’১৭) সকাল থেকে সাধু, ভক্তরা আসতে শুরু করেছে আঁখড়াবাড়ীতে। বসতে শুরু করেছে সাঁইজির মাজার প্রাঙ্গণে। সাধুরা বলেন, সাঁইজির দর্শনই আমাদের মূল উদ্দেশ্য, দোল পূর্ণিমার সময় এ উৎসবটাই আমাদের কাছে বড়। এখানে আত্মার শান্তির অন্বেষণে আসি, যারা সাধু রয়েছি, তারা মনে করি শুক্রবার মধ্যরাত থেকেই দোল পূর্ণিমা শুরু। তাই গুরুর দর্শন নিতে চলে এসেছি। তিনি আরো বলেন, সাঁইজির নিকটে থাকতে পারবো বলে ছুটে এসেছি। ৬০ বছর ধরে সাঁইজির কাছে আত্মার টানে ছুটে আসছি। যতদিন বাঁচবো সাঁইজির টানে যেন এই আঁখড়াবাড়ীতে আসতে পারি এই আকাঙ্ক্ষা।

সাঁইজির আঁখড়াবাড়ীতে ছোট ছোট আসরে চলছে গান আধ্যাত্মিক গানের আসর। দোল পূর্ণিমায় দেশ-বিদেশের নানা বয়সী দর্শনার্থীরা আসেন লালন মেলায়। কেউবা লালন ফকির সম্পর্কে জানতে আবার কেউবা আসেন লালনের এ মন মাতানো অনুষ্ঠান দেখতে।এ উৎসব দেখতে এসে অনেকেই লালন প্রেমে মজে যান। বাইরে কালী নদীর পাড় জুড়ে বসবে গ্রামীণ মেলার নজরকাড়া আয়োজন।
লালন মাজারের বাইরে লালন মঞ্চে তৈরি হচ্ছে আলোচনা ও মেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মঞ্চ। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতা ও কুষ্টিয়া লালন একাডেমির আয়োজনে এবার ভিন্ন আমেজে স্মরণোৎসব পালনের লক্ষ্যে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সাঁইজির মাজার ও এর আশপাশের এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করার জন্য পরিদর্শন করেন কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার এস.এম মেহেদী হাসান।তিনি জানিয়েছেন, লালন স্মরণোৎসবকে ঘিরে লালন মেলা ও লালন মাজার প্রাঙ্গণে নেওয়া হবে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। র‌্যাব, পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা বিভাগের সদস্যরাও কাজ করবেন। এবারই প্রথম লালন মেলার নিরাপত্তার জন্য কালীনদীতে পুলিশের স্পেশাল টিম স্পিড বোটের মাধ্যমে টহল দেবে। তাছাড়া মাজারে সিসি ক্যামেরাও থাকবে।

এছাড়াও লালন স্মরণোৎসব ২০১৭ এর প্রস্তুতি পরিদর্শন করেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক মো. জহির রায়হান। তিনি সার্বিক প্রস্তুতির বিষয়ে বিভিন্ন মিডিয়াতে ব্রিফিং প্রদান করেন। এসময় জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা এবং লালন একাডেমির এডহক কমিটির সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুক থেকে মতামত দিন
Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোঃ রাজন আমান, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি

১। নাম : মোঃ রাজন আমান (সাংবাদিক)। ২। পিতার নাম : মোহাম্মদ রাহাদ রাজা (সাংবাদিক)। ৩। মাতার নাম : মিসেস্ আমেনা রাহাদ (সাংবাদিক)। ৪। স্থায়ী/বর্তমান ঠিকানা (সকল প্রকার যোগযোগ) : মোঃ রাজন আমান (সাংবাদিক) এম,চাঁদ আলী শাহ্ রোড ভেড়ামারা, কুষ্টিয়া। মোবাইল : ০১৭২৪-৮৮৮১২৫। ৫। বয়স : ২৪ বৎসর। ৬। ধর্ম : ইসলাম (সুন্নী)। ৭। জাতীয়তা : বাংলাদেশী। ৮। শিক্ষাগত যোগ্যতা : বি,এ (পাশ)। ৯। সাংবাদিকতা পেশায় বাস্তব অভিজ্ঞতা : জাতীয় দৈনিক, সাপ্তাহিক, পাক্ষিক, মাসিক পত্রিকায় বাস্তব অভিজ্ঞতা ০৭ বৎসর।

Social Media Auto Publish Powered By : XYZScripts.com